দেশ

সংখ‍্যালঘুরা একদিন এদেশ দখল করে নেবে এই ধারনা অমূলক, বললেন নেবেলজয়ী অর্থনীতিবিদ অভিজিৎ বিনায়ক বন্দ‍্যোপাধ‍্যায়।।


চৈতালী নন্দী:চিন্তন নিউজ:৩০শে জানুয়ারি:–সংখ‍্যালঘুরা একদিন এদেশ দখল করে নেবে এই ধারনা অমূলক, বললেন নেবেলজয়ী অর্থনীতিবিদ অভিজিৎ বিনায়ক বন্দ‍্যোপাধ‍্যায়।।মুসলিমরা একদিন এদেশের দখল নেবে এটা একটা ভূল  ধারনা মাত্র। দুটি গোষ্ঠী যখন শিক্ষা, সম্পদ ও সংখ‍্যায় সমান হয় , তখন এধরনের ধারনা হতে পারে যে একপক্ষ অন‍্যপক্ষকে ছাড়িয়ে যাবে।কিন্তু অন‍্যপক্ষ যদি এই সবকিছুতেই দূর্বল হয় ,তখন এই আশঙ্কা অমূলক।

কলকাতায় প্রথম সম্মেলনে এসে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে তিনি সুর চড়ান কেন্দ্রীয় সরকারের বিরুদ্ধে। ক্ষমতাসীন গোষ্ঠীর সংখ্যালঘু জনসংখ্যা বৃদ্ধির দিকে ইঙ্গিত, সেটিকে’ বিপজ্জনক’ বলে চিহ্নিত করার চেষ্টা। এক্ষেত্রে তিনি ভারতের মুসলিম ও আমেরিকার  কৃষ্ণাঙ্গ আর মেক্সিকান দের মধ‍্যে মিল খুঁজে পেয়েছেন। যারা অর্থনৈতিক ও শিক্ষাগত দিক থেকে বঞ্চিত। তাঁর অঙ্গুলি নির্দেশ যে কেন্দ্রীয় সরকারের দিকেই উদ্দিষ্ট ছিল তা বলাই বাহুল্য।

নোবেলজয়ী অর্থনীতিবিদ এদিন কলকাতা আসেন তাঁর নতুন বইয়ের উদ্বোধনে। এদিন সম্প্রতিক অর্থনৈতিক নিম্নগতির কারণ নিয়েও কিছু প্রশ্নের উত্তর দেন তিনি। এর আগেও অর্থনৈতিক সেক্টর নিয়ে তিনি মন্তব্য করেছিলেন।বলেছিলেন এদেশে থাকলে তাঁর নোবেল পাওয়া সম্ভব হোতোনা সিস্টেম ও পরিকাঠামোর অভাবে। এদিন তিনি বলেন বাজেট ঘাটতি নিয়ে মাথা ঘামানোর থেকে দরিদ্রের ক্রয় ক্ষমতা বাড়ানো দরকার।পরিকাঠামোর উন্নতি ও ব‍্যাঙ্ককে উজ্জীবিত করতে সরকার কে বিনিয়োগ করতে হবে।অর্থনৈতিক মন্দা নিয়ে তিনি জানান, মন্দা শুরু হয়ে গিয়েছে, তবে পরিস্থিতি কতোটা সঙ্কটজনক, তা এক্ষুনি বলা সম্ভব নয়।

অর্থনৈতিক সেক্টর নিয়ে কেন্দ্রীয় সরকারের কিছু করার নেই বলে তিনি মনে করেন। পরিস্থিতি আরও খারাপের দিকে যাচ্ছে বলে তিনি ইঙ্গিত করেন। তবে এখন অবস্থা ১৯৯১ সালের থেকেও খারাপ বলে….অরবিন্দ সুব্রামানিয়াম এর বক্তব্যের উদ্ধৃতি দেন তিনি। গত দুএক বছরে অসংগঠিত ক্ষেত্রের কতটা অবনতি হয়েছে তার কোনো তথ‍্য তাঁর হাতে নেই। তবে বিশ্বের অর্থনৈতিক অবস্থা ততোটা খারাপ নয় ,যতোটা মানুষ মনে করছে। এরই সুযোগ নিচ্ছে ডোনাল্ড ট্রাম্পের মতো নেতারা। তবে তিনি নিজেকে আশাবাদী বলে মনে করেন। এদিন ধর্ম এবং অর্থনীতি দুদিকেই তিনি কেন্দ্রীয় সরকার কে নিশানা করেন।


মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।