দেশ

অর্ণব গোস্বামীর অন্তর্বর্তীকালীন রক্ষাকবচের মেয়াদ বাড়ালো সুপ্রিম কোর্ট ।


গোপা মুখার্জী : চিন্তন নিউজ:১৩ই মে:- পালঘর মবলিঞ্চিং এবং ১৪ই এপ্রিল বান্দ্রাতে অভিবাসী শ্রমিকদের বিক্ষোভের ঘটনাকে কেন্দ্র করে রিপাবলিক টিভির সম্পাদক অর্ণব গোস্বামী তাঁর প্রাইম টাইম শো তে যে আপত্তিজনক মন্তব্য করেছিলেন তার প্রেক্ষিতে তাঁর বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করা হয় । কিন্তু তিনি সেই এফআইআর এর তদন্ত ভার কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা সিবিআইকে দেওয়ার জন্য আবেদন রাখেন। সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি ডি ওয়াই চন্দ্রচূড় ও এম আর শাহের ডিভিশন বেঞ্চ গতকাল এই আদেশ দিয়েছেন যে, যতক্ষণ না পর্যন্ত সে বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় ততক্ষণ পর্যন্ত তাঁকে গ্রেফতার করা যাবে না।

এদিন আদালতে অর্ণব গোস্বামীর পক্ষের আইনজীবী হরিশ সালভে প্রশ্ন তোলেন –শুধুমাত্র রাজনৈতিক প্রতিহিংসার কারণেই কি তাকে বারো ঘন্টা জেরা করা হয়েছে? এর উত্তরে মহারাষ্ট্রের সরকার পক্ষের আইনজীবী কপিল সিব্বল জানান–আইন অনুসারেই তাঁকে জেরা করা হয়েছে, এখানে হেনস্থার কোনো বিষয় নেই ।

উল্লেখ্য, সম্প্রতি অর্ণব গোস্বামীর বিরুদ্ধে ২১শে এপ্রিলের এক টিভি অনুষ্ঠানে সনিয়া গাঁধীর বিরুদ্ধে মন্তব্যের ভিত্তিতে মহারাষ্ট্র, ছত্রিশগড় , তেলেঙ্গানা, মধ্যপ্রদেশ, রাজস্থান, পশ্চিমবঙ্গে অভিযোগ দায়ের করা হয়েছিল । এছাড়াও সম্প্রদায়গত বিদ্বেষ তৈরির চেষ্টার অভিযোগে রিপাবলিক টিভি চ্যানেলের সম্পাদক তথা মালিক অর্ণব গোস্বামীর বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করে মুম্বইয়ের পিধোনী থানার পুলিশ ।রাজা এডুকেশনাল ওয়েলফেয়ার সোসাইটির সেক্রেটারি এবং দক্ষিণ মুম্বইয়ের নুল বাজারের বাসিন্দা ইরফান আবুবকর শেখ পুলিশের কাছে দায়ের করা অভিযোগে জানান, গত ১৪ই এপ্রিল বান্দ্রাতে অভিবাসী শ্রমিকদের জড়ো হওয়ার সাথে বান্দ্রা মসজিদের কোনো সম্পর্ক না থাকা সত্ত্বেও এই মসজিদ কে কেন্দ্র করে মুসলিম সম্প্রদায়ের বিরুদ্ধে ঘৃণা ছড়ানোর চেষ্টা করেছিলেন অর্ণব গোস্বামী ।

অবশ্য অর্ণব গোস্বামী শীর্ষ আদালতের কাছে করা আবেদনে তাঁর বিরুদ্ধে আনা সমস্ত অভিযোগ মিথ্যা বলে জানিয়েছেন। আরও জানিয়েছেন, কংগ্রেস কর্মীদের পক্ষ থেকে উদ্দেশ্যপ্রণোদিত ভাবে তাঁর বিরুদ্ধে অভিযোগ জানানো হয়েছে ।


মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।