রাজ্য

বাস্তুহারাদের দলিল দিচ্ছে না রাজ্য সরকার”


সুপর্ণা রায়:চিন্তন নিউজ:২০শে নভেম্বর:–বাস্তুহারাদের দলিল দিচ্ছে না রাজ্য সরকার“”কাজ হচ্ছে না তবে কিসের খতিয়ান দিচ্ছেন?”এই প্রশ্ন করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি সরকারি অফিসারদের।। এতদিন এই প্রশ্ন করতেন বিরোধী দলের নেতাকর্মীরা, সাধারণ মানুষ।। এবার খোদ মুখ্যমন্ত্রী নিজেই!!!! এতেই স্পষ্ট , কাজ হচ্ছে না।।। নবান্ন থেকে যা দাবি করা হয়েছে তার হিসাব মিলছে না গ্রামগঞ্জে।।।। মুখ্যমন্ত্রী নিজেই বলেছেন”””সরকারি প্রকল্পের কাজ কেন আটকে??? জাতীয় সড়ক এর কাজ কেন এগোচ্ছে না??? একশো দিনের কাজ কেন হচ্ছে না???কাজ না হলে মানুষ তাঁকে ধরবে”””” মুখ্যমন্ত্রী র কাছে এমন ধমক খেয়ে দক্ষিণ দিনাজপুরের জেলা শাসক বলেছেন , সদস্যরা বারবার দলবদল করছেনজেলা পরিষদ এর কাজ এগোচ্ছে না।। সদস্যদের বিজেপি র দিকে হেলে পড়ছে।। এই শুনে মুখ্যমন্ত্রী বলেছেন””””যাই কিছু হোক সমস্যা মেটান”””” । মমতা ব্যানার্জি কোচবিহার জেলায় এসেছিলেন সেখান থেকে গঙ্গারামপুর। তিনি আসবেন তাই তাড়াতাড়ি হেলিপ্যাড তৈরি করা হয়।। সেখানে তিনি মদনমোহন মন্দিরে পুজো দেন এবং পরে প্রশাসনিক বৈঠক করেন।

মুখ্যমন্ত্রী ব্যানার্জি এদিন সর্বসমক্ষে বলেছেন বাঙলাতে এন আর সি কিম্বা সিএবি হবে না।। যারা এখানে ব্যবসা করেন বা যাদের সন্তানরা এখানে স্কুল কলেজে পড়ে ,যারা সরকারি কোনো রকম সুবিধা পান তাহলে তাদের চিন্তার কোন কারন নেইসবাই এই রাজ্যের নাগরিক।। তিনি বলেন বিজেপি মানুষ এর মধ্যে ভাগাভাগির চেষ্টা করছে।। তিনি আরো বলেন যারা উদ্বাস্তু ছিলেন তাঁদের শর্ত হীন দলিল দেবার কাজ তার হাত দিয়ে দেওয়ার কাজ শুরু হয়েছে এই কথা বলতে শোনা যায়।। তাঁর দাবি সমস্ত উদ্বাস্তু কলোনীর অধিকার তিনিই দিয়েছেন।। তাঁর হাতে তথ্য ছিল শর্ত হীন দলিল দেবার তথ্য।। কিন্তু দক্ষিণ দিনাজপুরের গত আট বছরে এই দপ্তর কাজের অগ্রগতির তেমন কোন তথ্য নেই।। বামফ্রন্ট সরকারের আমলে এই কলোনীর বাসিন্দা দের ১ টাকা লিজ পাট্টা দেওয়ার প্রক্রিয়া শুরু হয়েছিল কিন্তু দুর্ভাগ্য এই সরকার আর তা দিচ্ছে না।।সন্মিলিত কেন্দ্রীয় বাস্তুহারা পরিষদ শুধু কোচবিহার জেলার ১৮৪টি উদ্বাস্তু কলোনীর বাসিন্দা দের হাতে শর্তহীন দলিল তুলে দেওয়ার জন্য আন্দোলন করেছে_এর চাপে পড়ে ১২ টি কলোনীকে দলিল দেবার কথা জানায় ভূমি ওভূমি সংস্কার দপ্তর।। বাকি গুলোর কি হবে তার উত্তর দিতে ব্যর্থ এই দপ্তরের কর্মকর্তা রা।। এই পরিস্থিতিতে ইউসিআরসি ‘র কোচবিহার জেলার সম্পাদক মহানন্দ সাহা বলেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি যা বলছেন তা সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন।। তিনি বলেন ,১৯৫০ সাল থেকে জমির অধিকার নিয়ে আন্দোলন চালিয়ে যাচ্ছে কেন্দ্রীয় বাস্তুহারা পরিষদ। এই আন্দোলনের জন্য ৮৪ জন কে প্রান দিতে হয়েছে।।


মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।