শিক্ষা ও স্বাস্থ্য

নীরব ঘাতক টি ব্যাগ ডেকে আনছে চরম বিপদ।


সূপর্ণা রায়:চিন্তন নিউজ:৪ঠা ফেব্রুয়ারি:–চায়ের সঙ্গে বিষপানসকালে উঠেই চা সকলের নিত্যসঙ্গী।।গল্পে, আড্ডায়, চায়ের জুড়ি মেলা ভার। ইদানিং অনেকেই চা পাতা না ভিজিয়ে টি_ ব্যাগ ব্যবহার করতে বেশি পছন্দ করেন।। কিন্তু এই টিব্যাগ ডেকে আনে চরম বিপদ। এক নীরব ঘাতক এই টিব্যাগ।। অনেকেই ভাবেন টিব্যাগ কাগজের তৈরি তাই বিপদের আশংকা থাকে না।। হ্যাঁ এটা সত্যি যে টিব্যাগ কাগজের তৈরি কিন্তু এটি সিল করা হয় পলিপ্রোপাইলিন নামে এক ধরনের প্লাস্টিক দিয়ে।।

কানাডার ম্যাকগিল বিশ্ববিদ্যালয়ের এই নিয়ে এক গবেষণা রিপোর্ট বলছে এই তথ্য।। তাদের দাবি এই টিব্যাগ দিয়ে তৈরি চায়ের সঙ্গে আমাদের শরীরে প্রবেশ করছে “”বিষ””. এক কাপ গরম জলে টিব্যাগ ডোবালে কতটা প্লাস্টিক মিশছে তা জানতে একটি পরীক্ষা করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকরা।। তাঁরা বাজার থেকে কিনে আনেন চার ধরনের টিব্যাগ।। এবার সেগুলো কেটে তার ভেতর থেকে চায়ের গুঁড়ো বের করে আনেন ।। এরপর খালি প্যাকেট ফুটন্ত গরম জলের মধ্যে ডোবান।। অনুবীক্ষণ যন্ত্রের সাহায্যে তাঁরা দেখেন এক একটি টিব্যাগ থেকে ১১৬০ কোটি মাইক্রোপ্লাসটিক খন্ড এবং ৩১০ কোটি ন্যানো প্লাস্টিক খন্ড মিশছে জলে।।

গবেষক নাথালি তুফেঙ্কজি জানান _টেবিল সল্টে মাইক্রোপ্লাসটিক মিশে থাকে।।এক গ্রাম লবণ এ ০’০০৫ মাইক্রোগ্রাম প্লাস্টিক মেশে। সেখানে এক কাপ চা তে ১৬ মাইক্রোগ্রাম প্লাস্টিক মেশে। এখন অনেক কোম্পানি নেটের টিব্যাগ তৈরি করে।। কিন্তু এই নেটের প্রধান উপাদান প্লাস্টিক।। সুতরাং এই টিব্যাগ গুলোও ভীষণ ভাবে ক্ষতিকর।। সম্প্রতি জাতিসংঘের বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বলেছে মাইক্রোপ্লাসটিক গুলো বর্তমানে স্বাস্থ্য ঝুঁকি বাড়াচ্ছে।।এই প্লাস্টিক কিভাবে কিভাবে মানবশরীরে প্রভাব বিস্তার করে তা জানতে আরও অনেক গবেষণার প্রয়োজন।। তাই টিব্যাগ ডোবানো চা মুখে তোলার আগে সতর্ক হোন।। মুহূর্তের মধ্যে চাঙ্গা করে তোলা চা ভবিষ্যতে মৃত্যু ডেকে আনতে পারে।।


মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।