বিদেশ শিক্ষা ও স্বাস্থ্য

করোনা ভাইরাসের ভ্যাকসিন স্ফুটনিক-ভি আবিষ্কারের কথা—জানালো রাশিয়া ।



গোপা মুখার্জী : চিন্তন নিউজ :১৬ই আগস্ট:-
গত ১১ ই আগস্ট মঙ্গলবার রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন প্রথম ও দ্বিতীয় পর্যায়ের ট্রায়ালের পর করোনা ভাইরাসের ভ্যাকসিন স্ফুটনিক-ভি আবিষ্কারের কথা আনুষ্ঠানিক ভাবে ঘোষণা করেন এবং দাবী করেন তাঁর দেশ রাশিয়া করোনা ভ্যাকসিন আবিষ্কারে বিশ্বে প্রথম হয়েছে ।এর পরই বিভিন্ন দেশ থেকে বিশেষ করে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও ইউরোপের গবেষকরা এমনকি বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (WHO) এর কার্যকারিতা নিয়ে সন্দেহ প্রকাশ করেন ।তৃতীয় পর্যায়ের ট্রায়াল না করেই তাড়াহুড়ো করে বানানো ভ্যাকসিন কতটা কার্যকরী হবে তা নিয়ে অনেকের মধ্যে প্রশ্ন ওঠে ।
কিন্তু সমস্ত রকম সন্দেহের অবসান ঘটিয়ে মস্কোর গ্রামালেয়া গবেষণা ইনস্টিটিউটের প্রধান আলেকজান্ডার গিন্সবুর্গ জানিয়েছেন যে, কোন রকম তাড়াহুড়ো নয় , বিভিন্ন বায়োটেকনিশিয়ান , ভাইরোলজিষ্ট এবং ইমিউনোলজিস্ট মিলে দীর্ঘ কুড়ি বছর ধরে তৈরি হওয়া উন্নত প্রযুক্তি এবং ‘ইবোলা’ ও ‘মার্সের ষ’মতো সাংঘাতিক ভাইরাসের ভ্যাকসিন নিয়ে কাজ করার অভিজ্ঞতা থেকেই তাঁরা এই কাজে সক্ষম হয়েছে ।

রুশ বার্তা সংস্থা ‘ইন্টারফ্যাক্সের’ তরফে শনিবার জানানো হয় যে, আগাম ঘোষণা অনুযায়ী রাশিয়া ভ্যাকসিনের খুচরো উৎপাদন শুরু করে দিয়েছে ।চলতি মাসের শেষ সপ্তাহ নাগাদ এই ভ্যাকসিনের প্রথম ব্যাচ বাজারে ছাড়া হবে বলেও সংস্থা জানিয়েছে ।

রাশিয়ার তৈরি টীকা ‘স্পূটনিক-ভি ‘ নিরাপদ নয় বলে ধনতান্ত্রিক দেশ গুলি যে সন্দেহ প্রকাশ করেছে তা নস্যাৎ করে দিয়ে রাশিয়ার স্বাস্থ্য মন্ত্রী মিখাইল মুরাশকো জানিয়েছেন, এই টীকা যথেষ্ট কার্যকরী ।এবং তিনি আরও জানিয়েছেন যে এই ভ্যাকসিন ব্যবহারকারীরা কোনো সমস্যায় পড়েছেন কিনা তা খতিয়ে দেখার জন্য বিশেষ অ্যাপ তৈরি করা হচ্ছে ।
ভারত সহ বিশ্বের কুড়িটি দেশ রাশিয়ার তৈরি টীকা নিতে আগ্রহ প্রকাশ করেছেন ।প্রথম থেকে সতর্কতা অবলম্বন করা ভিয়েতনামে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা সব থেকে কম। সম্প্রতি কিছু করোনা পজিটিভ ধরা পড়ায় ভিয়েতনাম ও রুশ টীকা কিনতে আগ্রহী ।যদিও তারা জানিয়েছে এর সাথে সাথে তারা টীকা আবিষ্কারের কাজও চালিয়ে যাবে ।


মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।