দেশ

খুব শীঘ্রই বিধানসভা অধিবেশন ডাকতে চলেছেন রাজস্থানের মুখ্যমন্ত্রী অশোক গেহলট:—-


কাকলি চ্যাটার্জি: চিন্তন নিউজ:২৪শে জুলাই:- খুব শীঘ্রই বিধানসভা অধিবেশন ডাকতে আগ্ৰহ প্রকাশ করেছেন রাজস্থানের মুখ্যমন্ত্রী অশোক গেহলট। শচীন পাইলট গোষ্ঠীর বিরোধিতা সত্ত্বেও বিধানসভায় সংখ্যাগরিষ্ঠ বিধায়ক তাঁর সঙ্গে আছেন বলেই তাঁর অভিমত। আসন্ন বিধানসভা অধিবেশনে সংখ্যাগরিষ্ঠতা প্রমাণের পাশাপাশি করোনাভাইরাস নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করা হবে বলে তিনি জানান। ২০০ আসন বিশিষ্ট রাজস্থান বিধানসভায় ১০৯ জন বিধায়ক তাঁর সঙ্গে আছেন বলে তিনি দাবি করেছেন। বিজেপির পক্ষে সরকার গঠনের সম্ভাবনা তিনি উড়িয়ে দিয়েছেন।

মুখ্যমন্ত্রী গেহলট গতকাল বলেন তিনি দ্রুততার সঙ্গে বিধানসভা অধিবেশন ডেকে প্রমাণ করবেন তাঁর সংখ্যাগরিষ্ঠতা। শচীন পাইলট সহ ১৯ জন বিধায়ককে গত মঙ্গলবার শো কজের নোটিশ ধরান স্পিকার সি পি যোশী। অধ্যক্ষর কাছে এঁদের বিধায়কপদ খারিজ করার আবেদন জানানোর বিষয়টি উল্লেখ করা ছিল। গত সোমবার ও মঙ্গলবার কংগ্ৰেস পরিষদীয় দলের বৈঠকে উপমুখ্যমন্ত্রী তথা রাজ্যসভাপতি শচীন পাইলট অনুপস্থিত ছিলেন। এজন্য তাঁকে ঐ পদ দুটি থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়েছে।

কংগ্রেস পরিষদীয় দলের বৈঠকে গেহলট বিধায়কদের ‘পাথরের মত দাঁড়ানোর’ আহ্বান জানান। তিনি আরও বলেন কংগ্রেস বা বিজেপি কেউই বিধানসভা ভেঙে দিয়ে পুনরায় নির্বাচন চায় না। “আপনি যেভাবে লড়াই চালিয়ে যাচ্ছেন তা পুরো দেশ দেখছে। আপনার প্রতি শ্রদ্ধা এজন্য বৃদ্ধি পেয়েছে। কোনো তুচ্ছ বিষয় এটা নয়।” মুখ্যমন্ত্রী আগে বলেছিলেন পাইলটের সঙ্গে থাকা বিধায়করা স্বেচ্ছায় তাঁর সঙ্গে যান নি। অনেকেই যোগাযোগ রেখে চলেছেন মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে। জয়পুরের রিসর্টে গেহলটের সঙ্গে থাকা বিধায়করা বর্তমানে আছেন।

অপরদিকে শচীন পাইলটের সঙ্গে থাকা বিদ্রোহী বিধায়করা বিজেপি শাসিত হরিয়ানাতে ঘাঁটি গেড়েছেন। কংগ্রেসের দাবী ১০৯ জন বিধায়কের সমর্থন আছে তাদের সঙ্গে। বিজেপির বিধায়ক বর্তমানে ৭২, লোকতান্ত্রিক দলের ৩ জন মিলিয়ে ৭৫। বিদ্রোহী ১৯ জন বিধায়ক বিজেপির সঙ্গে গেলে সংখ্যাটা হবে ৯৪। এদিকে তখন কংগ্রেসের শক্তি কমে হবে ৮৮। তখন কংগ্রেসকে নির্ভর করতে হবে নির্দল ও ছোট ছোট আঞ্চলিক দলগুলোর ওপরে। আবার বিজেপি সেটা আটকানোর চেষ্টা করছে। আগামী দিনে এই দুই দলের ঘোড়া কেনাবেচা খেলায় কে জয়ী হবে তার ওপরই নির্ভর করবে রাজস্থানের রাজনীতির হালহকিকত।


মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।