জেলা

পূর্ব বর্ধমান জেলার খবর


চিন্তন নিউজ, কল্পনা গুপ্ত, ১৯ মে – ১৮ মে : অপ্রতুল ভ্যাকসিন, ভ্যাকসিন নিতে আসা মানুষের চূড়ান্ত হয়রানি, হাসপাতালে সমস্ত ক্ষেত্রে চূড়ান্ত অব্যবস্থা, কোভিড চিকিৎসাকে কেন্দ্র করে সক্রিয় দালাল চক্রের বিরুদ্ধে অবিলম্বে ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি সহ ৭ দফা দাবিতে কাটোয়া মহকুমা হাসপাতালের সুপার ডা. শুভ্রজ্যোতি দে কে আজ দুপুর দুটোয় ডেপুটেশন দেওয়া হয় সিপিআই(এম) কাটোয়া শহর এরিয়া কমিটির পক্ষ থেকে। ডেপুটেশনে সিপিআই(এম) কাটোয়া শহর এরিয়া কমিটির পক্ষ থেকে অংশগ্রহণ করেন প্রকাশ সরকার, সমীর চন্দ্র ও সুজিৎ রায়।
কোরোনা প্রতিষেধক টিকাকরণে মানুষের হয়রানি বন্ধ করতে হবে, কাটোয়া মহকুমা হাসপাতালে কোভিড চিকিৎসার পরিসর বাড়াতে হবে — ইত্যাদি দাবের সাথে সাথে, অল্প পরিমাণে হলেও যে ভ্যাকসিন আসছে তার সুষ্ঠু বন্টন করা হচ্ছে না বলে প্রতিনিধি দলের পক্ষ থেকে অভিযোগ করা হয়। বৃদ্ধ, অতিবৃদ্ধ মানুষদের জন্য পৃথক ব্যবস্থার দাবি জানান তাঁরা। প্রতিদিন ১ম ডোজ, ২য় ডোজ কত পরিমাণে দেওয়া হবে, তার আগাম ঘোষণার দাবি জানানো হয় আজকের ডেপুটেশনে।
হকার, পরিবহন শ্রমিক ছাড়াও গৃহ পরিচারিকা ইত্যাদি পেশার সাথে যুক্ত গরিবদের, যাঁদের অনেক পরিবারের সঙ্গে সরাসরি সংস্পর্শে আসতে হয়, তাঁদের টিকাকরণে অগ্রাধিকারের দাবি জানানো হয়। এক্ষেত্রে শ্রমিকদের সামাজিক সুরক্ষার সরকারি পরিচয় পত্র ব্যবহারের দাবিও জানানো হয়।
এ্যম্বুলেন্সের লাগামছাড়া ভাড়া এবং হাসপাতালে সক্রিয় দালাল চক্র সম্পর্কে ভুক্তভোগী রোগী পরিবারের নানা অভিযোগের কথা হাসপাতাল সুপারের সামনে তুলে ধরে ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানান সিপিআই(এম) নেতৃত্ব।
আলোচনার চলাকালীন কোভিড মোকাবেলায় রেড ভলেন্টিয়ারদের বিভিন্ন কর্মসূচির উল্লেখ করে প্রয়োজনে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে সর্বতোভাবে সহযোগিতার আশ্বাস দেওয়া হয়। আলোচনার শেষে উপস্থাপিত দাবিগুলির প্রেক্ষিতে যথাযথ পদক্ষেপ গ্রহণের আশ্বাস দেন হাসপাতাল সুপার।
গতকাল, ১৮ মে কালনা শহরের ৭নং ওয়ার্ড লালবাগান এলাকার জনৈকা বাসিন্দা করোনায় আক্রান্ত হয়ে হোম আইসোলশনে থাকাকালীন অক্সিজেন লেভেল ৮৮ হয়। বিভিন্ন জায়গায় যোগাযোগ করেও অক্সিজেন সিলিন্ডার না পেয়ে কালনা শহর রেড ভলেন্টিয়ারদের সাথে যোগাযোগ করলে কালনা শহরের রেড ভলেন্টিয়াররা তাঁর বাড়িতে অক্সিজেন সিলিন্ডার পৌঁছে দিলেন।


মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।