দেশ

বৃষ্টিপাতে ভূমিধসের কবলে কেরালা ।।


চৈতালি নন্দী: চিন্তন নিউজ:৯ই আগস্ট:- গত কয়েকদিনের লাগাতার বর্ষনে কেরালার ব‍্যাপক ভূমিধসের খবর পাওয়া গেছে। কেরালার ইদুক্কি জেলা সহ মুন্না,কান্নুর, ওয়ানাড মালদুপুরম সহ এই জেলাগুলিও প্রবল বর্ষনের কবলে। শেষ পাওয়া খবর অনুযায়ী মৃত বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২৬ জন ,এখনও পর্যন্ত নিখোঁজের সংখ্যা ৮০ জন।

খবর পাবার সঙ্গে সঙ্গে সেখানে পৌঁছে গেছে উদ্ধারকারী দল। কিন্তু একটানা বৃষ্টিপাতে অগম‍্য বহু রাস্তা। ফলে উদ্ধার কাজ ব‍্যাহত হচ্ছে। উদ্ধারের জন‍্যে রাজমালায় ভারতীয় সেনাবাহিনীর হেলিকপ্টার চেয়ে পাঠানো হয়েছে। কারণ বহু রাস্তা বন্ধ হয়ে থাকার দরুন হেলিকপ্টার ছাড়া দূর্গত মানুষ দে উদ্ধারকাজ ব‍্যাহত হচ্ছে।

এছাড়াও কেরলের মুন্নার জেলা ভূমিধসের কবলে পড়েছে। হড়পা বানের কবলে পড়ে অবস্থা আরও ভয়াবহ হয়ে পড়েছে। এলাকাটিতে চা শ্রমিকদের বসতি থাকার  কারণে তারা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে সবচেয়ে বেশী।বহু মানুষ ভূমিধসের নীচে চাপা পড়ে যাবার আশঙ্কা রয়েছে। নষ্ট হয়েছে ফসল। শবরীমালা মন্দিরে যাবার রাস্তাটিও পড়েছে ধসের কবলে। জল বাড়ছে এরনাকুলম জেলার পেরিয়ার নদীতে। এছাড়াও জল বাড়ার খবর আসছে বিভিন্ন জেলার থেকে। উড়ুক্কু বাঁধের তিনটি লকগেট খুলে দেওয়া হয়েছে।

আগামী দুদিন অতিবৃষ্টির  সম্ভাবনা রয়েছে। পূর্বাভাস রয়েছে ৪০ কিমি বেগে ঝোড়ো বাতাস বইবারও । লাল সতর্কতা জারি করা হয়েছে ইদুক্কি ও ওয়ানাডে জেলায়। আইএমডি বুলেটিন অনুসারে কান্নুর , মালদুপুরম, কোজিকোড, নান্নুর ,ইদুক্কি সহ কেরালার বিস্তির্ণ অঞ্চলে জারি করা হয়েছে লাল সতর্কতা। ভূমিধসের কারণে মৃতদের পরিবারকে ৫ লক্ষ টাকা আর্থিক সহায়তা ঘোষনা করা হয়েছে কেরল রাজ্যসরকারি তরফে। বিদেশমন্ত্রী ভি মুরলীধরন দূর্গতদের সঙ্গে দেখা করবেন বলে খবরে জানা গেছে। উদ্ধারকাজ চলছে দ্রুতগতিতে।


মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।