জেলা

জলপাইগুড়ি জেলার খবর


জাতীয় শিক্ষানীতির বিরুদ্ধে এস এফ আই এর কনভেনশন।।

,দীপশুভ্র সান্যাল: চিন্তন নিউজ:, ১ জুলাই:-
জাতীয় শিক্ষানীতির বদল, বিশ্ববিদ্যালয় গুলিতে কেন্দ্রীয় কাউন্সিলিং এর মাধ্যমে ভর্তি প্রক্রিয়া চালু করা, অনলাইন শিক্ষা বন্ধ করে স্কুল কলেজ চালু রাখা সহ শিক্ষামূলক বিভিন্ন দাবি-দাওয়া নিয়ে স্কুল কলেজে জোরদার আন্দোলন গড়ে তোলার লক্ষ্যে সংগঠনকে শক্তিশালী করে আজকের দিনের ছাত্র সমাজকে নেতৃত্ব দিতে চাই কর্মীদের এগিয়ে আসার আহ্বান জানিয়ে শিক্ষক ভবন এ বি পি টি এ দপ্তরের কর্মীসভা করেন এস এফ আই এর রাজ্য সভাপতি প্রতীক উর রহমান। সভায় সভাপতিত্ব করেন ছাত্রনেতা অনুভব দে উপস্থিত ছিলেন রাজ্য নেতৃত্ব পারসন খেরিয়া। জেলার বিভিন্ন প্রান্ত থেকে আসা শতাধিক ছাত্র নেতৃত্বের উপস্থিতিতে সভায় অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন এসএফআই জলপাইগুড়ি জেলা সম্পাদক প্রভাকর সরকার। প্রভাকর সরকার তার আলোচনায় বলেন দীর্ঘ প্রায় দু বছরের বেশি সময় ধরে স্কুল-কলেজ বন্ধ ছিল আজ সরকার নানা অছিলায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলি বন্ধ রেখে বেসরকারি শিক্ষা ব্যবস্থার হাতে পশ্চিমবঙ্গের শিক্ষার ভার তুলে দিতে চাইছে এসএফআইয়ের লাগাতার আন্দোলনের ফলে সরকার স্কুল খুলতে বাধ্য হয়েছে আমরা শিক্ষার বেসরকারিকরণ এর বিরুদ্ধে ছাত্র-শিক্ষক অভিভাবক সহ সমাজের সর্বস্তরের মানুষকে সাথে নিয়ে সর্বশক্তি নিয়োগ করে লড়াই করব।

মানব অধিকার কর্মীর তিস্তা শীতলাবাদের নিঃশর্ত মুক্তির দাবিতে পথে নামল শ্রমিক কর্মচারী শিক্ষক ছাত্র যুব সংগঠনের যৌথ মঞ্চ–

দীপশুভ্র সান্যাল আরও জানাচ্ছেন,–১জুলাই:-
অবিলম্বে অগ্নিপথ এর নামে সেনাবাহিনীতে চুক্তিভিত্তিক নিয়োগ বন্ধ করা, মানবাধিকার কর্মী তিস্তা শীতলাবাদ কে অবিলম্বে মুক্তি প্রদান এর দাবিতে জলপাইগুড়ি শহরে প্রতিবাদ মিছিল ও সভা করল ব্যাংক বীমা কর্মচারী, বিভিন্ন শ্রমিক সংগঠনসমূহ ও ছাত্র যুব শিক্ষকদের যৌথ মঞ্চ। সিআইটিইউ জেলা দপ্তরের সামনে থেকে মিছিল শুরু হয়ে শহর পরিক্রমা করে ডিবিসি রোডে এসে শেষ। কর্মসূচিতে উপস্থিত ছিলেন সিআইটিইউ,জলপাইগুড়ি জেলা সম্পাদক জিয়াউল আলম, এলআইসি কর্মচারী আন্দোলনের নেতা ধ্রুবজ্যোতি গাঙ্গুলী, ব্যাংক কর্মচারী আন্দোলনের নেতা মৃণাল রায়, এ আই টি ইউ সির নেতা প্রদীপ গাঙ্গুলী, ছাত্রনেতা শুভম ঠাকুর, শ্রমিক নেতা শুভাশিস সরকার অন্যান্য নেতৃবৃন্দ।
নেতৃবৃন্দ জানান সরকার যেভাবে প্রতিবাদ করলেই প্রতিবাদীদের কণ্ঠ রোধ করছে তা জরুরি অবস্থার কথা মনে করিয়ে দেয়। কেন্দ্রীয় সরকারকে অবিলম্বে সমাজকর্মী তিস্তা শিতলাবাদের মুক্তি দিতে হবে, অগ্নিপথের নামে সেনাবাহিনীতে ঠিকা শ্রমিক নিয়োগ করা চলবে না


মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।