জেলা

বৃষ্টিকে উপেক্ষা করে নিখিল বঙ্গ প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির উদ্যোগে মেধা অন্বেষণে বিরাট সারা ছাত্র-ছাত্রী ও অভিভাবকদের।।


দীপশুভ্র সান্যাল, জলপাইগুড়ি,২৪ সেপ্টেম্বর:-
গত কয়েকদিন ধরে চলা প্রবল প্রাকৃতিক দুর্যোগ ঝড় জলের মধ্যে বৃষ্টিকে উপেক্ষা করে নিখিল বঙ্গ প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির উদ্যোগে মেধা অন্বেষণে রবিবার বিভিন্ন পরীক্ষা কেন্দ্রে উপস্থিত হলেন অভিভাবকেরা শিশুদের সাথে নিয়ে, জলপাইগুড়ি জেলার সর্বত্র একই চিত্র ধরা পরল। ১৮ টি সার্কেলে মোট ৪০৫৮ জন ফর্ম জমা দেন যার মধ্যে ৩৯০০ জনের বেশি ছাত্র ছাত্রীরা আজকে উপস্থিত ছিল বলে জানান হয়েছে সংগঠনের তরফে। ৩৯ টি সেন্টারে গড়ে ৯৮% পরীক্ষার্থী উপস্থিত থাকায় উৎসাহিত হন জলপাইগুড়ির নিখিল বঙ্গ প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির সদস্যরা।
নিখিল বঙ্গ প্রাথমিক শিক্ষক সমিতি পশ্চিমবঙ্গের প্রতিটি জেলায় তৃতীয় চতুর্থ ও পঞ্চম শ্রেণীর ছাত্র-ছাত্রীদের নিয়ে,   নিখিল বঙ্গ মেধা অন্বেষণ ২০২৩ আয়োজন করা হয়।বাংলা ও হিন্দি দুটো ভাষায় এই পরীক্ষা নেওয়া হয়। নিখিল বঙ্গ প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির জলপাইগুড়ি জেলা কমিটির সম্পাদক বিপ্লব ঝা অভিভাবক, শিক্ষা প্রশাসনের, সাধারণ প্রশাসনের কর্তা ব্যক্তিদের ধন্যবাদ জ্ঞাপন করে। তিনি বলেন প্রাকৃতিক দুর্যোগকে উপেক্ষা করে যেভাবে অভিভাবকেরা শিশুদের এই মেধা অন্বেষণে অংশগ্রহণ করালেন তাতে সংগঠন অভিভূত। জেলা সর্বত্র নির্বিঘ এই মেধা অন্বেষণ কর্মসূচি সুষ্ঠুভাবে পালন করেন সংগঠনের শিক্ষক শিক্ষিকারা, শিশুদের উৎসাহ চোখে পড়ার মত ছিলো। প্রবল বৃষ্টিতেও জেলার বিভিন্ন পরীক্ষা কেন্দ্রের বাইরে সামনে ভিড় করে থাকেন অভিভাবকেরা।

মেধা অন্বেষণ মালবাজারে

নিখিল বঙ্গ প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির পরিচালনায় তৃতীয় , চতুর্থ ও পঞ্চম শ্রেণীর পড়ুয়াদের জন্য নিখিল বঙ্গ মেধা অন্বেষণ রবিবার হল। আয়োজকদের কর্মকর্তা তাপস বন্দ্যোপাধ্যায়, বিমলেন্দু সিংহ রায়, কামিনী মোহন রায় বলেন, মাল সার্কেলের মেধা অন্বেষনে ভালো সাড়া মিলেছে। মাল আদর্শ বিদ্যাভবনে অন্বেষণ হয়েছে। ৮৯ জন পড়ুয়া মেধা অন্বেষণে অংশ নিয়েছে । পড়ুয়াদের সার্বিক মান্নোন্নয়নে অন্বেষণ কার্যকারী ভূমিকা নেবে । পড়ুয়ারাও অন্বেষণে অংশ নিয়ে খুশি। মালবাজার শহরের পাশাপাশি জলপাইগুড়ি জেলার বিভিন্ন এলাকায় এদিনের এই মেধা অন্বেষণ অনুষ্ঠিত হয়। প্রতিটি জায়গাতেই ছাত্র-ছাত্রীরা অংশগ্রহণ করে।


মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।