জেলা

৩৭ তম পশ্চিমবঙ্গ মাষ্টার অ্যাথলেটিক্স মিটে তিনটি ইভেন্টে সোনা জিতলেন আটত্রিশের গৃহবধূ


সুপর্ণা রায়: চিন্তন নিউজ:৯ই মার্চ:– কথায় আছে, মন থেকে চেষ্টা থাকলে সবকিছুই করা সম্ভব। আর সেটাই করে দেখালেন অ্যাথলেটিক্স আটপৌরে গৃহবধু তনুশ্রী লালা। মালদহের তনুশ্রী লালা ,দুই ছেলের মা ,আটত্রিশ বছর বয়সী গৃহবধু। পরিবারের বাধায় হয়ে উঠেনি তাঁর ছোটবেলার ইচ্ছেপূরণ । ছোটবেলা থেকেই ইচ্ছে ছিল পুলিশে চাকরী করার । হয়ে উঠেনি —- তারপর বিয়ে এবং পর পর দু – ছেলের মা হয়ে যান তনুশ্রী দেবী।

ছোটবেলা থেকেই খেলাধুলো ভালোবাসতেন কিন্ত একটু বড়ো হতে সেটাও বন্ধ হয়ে যায় আর পরবর্তী তে স্বামীর সহযোগীতায় আবার মাঠে ফেরা। ৩৭ তম পশ্চিমবঙ্গ মাষ্টার অ্যাথলেটিক্স মিটে তিনটি ইভেন্টে সোনা জিতে পরিবার , মালদা জেলা তথা সমগ্র পশ্চিমবঙ্গের মুখ উজ্জ্বল করলেন । আন্তর্জাতিক মহিলা দিবসের সকালে এই পুরষ্কার নিয়ে তিনি ঘরে ফেরেন। এর আগেও তিনি জাতীয় ও রাজ্যস্তরে বহু পুরষ্কারে সন্মানিত হয়েছেন আর তার পুরোটাই হয়েছে তাঁর স্বামী সুব্রত লালা সহযোগীতায়।

বেসরকারী সংস্থায় কর্মরত স্বামী , বড়ো ছেলে কলেজ পড়ুয়া আর ছোট ছেলে নবম শ্রেনীর ছাত্র — সংসারের সব কাজ সামলে মাঠে যান অনুশীলন করতে । কখনো সকালে বা কখনো বিকেলে প্র্যাকটিস করেন ,কখনো মাঠে আবার কখনো মালদা বিমানবন্দরের মাঠে বা রেলের ফাঁকা জায়গায়। তনুশ্রী’র বক্তব্য– খেলা ভালো লাগে ,তাই মাঠেই থাকতে চান তিনি।


মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।