জেলা

হুগলি জেলার সংবাদ


সোমনাথ ঘোষ, শ্রীরামপুর, ২১ নভেম্বর: গোঘাট থানার বাম ট্রেড ইউনিয়ন ও গণসংগঠনের উদ্যোগে আজ সকালে বেঙ্গাই থেকে গোবিন্দপুর মহামিছিল হয়ে গেল ধর্মঘটের সমর্থনে। গোঘাটের ১৬টি অঞ্চল থেকে কর্মী সমর্থকদের ভিরে উপচে পড়ে বেঙ্গাই চৌমাথায়। মাঠে ফসল তোলা ও বোনাতে প্রচুর ব্যস্ততা, তারপর সকালে বৃষ্টি উপেক্ষা করে শ’য়ে শ’য়ে মানুষ এসে পা মেলায় এই মিছিলে।প্রায় ছয় কিমি রাস্তা কাঁপিয়ে দৃপ্ত মিছিল গোবিন্দপুরে এসে শেষ হয়।

বেঙ্গাই চৌমাথাতে প্রারম্ভিক বক্তব্য রাখেন জেলা কৃষক সমিতির সম্পাদক ভক্তরাম পান। মিছিলে উপস্থিত ছিলেন সি আই টি ইউ জেলা সম্পাদক অসিত মুখার্জি, অরুন পাত্র, অভয় ঘোষ, ভাস্কর রায, তরুণ ঘোষ, তিলক ঘোষ, জাকির হোসেন, মুক্তা রায়, সৌরভ পাঁজা, সফিক, মানস ভঞ্জ, শিবপ্রসাদ মালিক, হরপ্রসাদ মন্ডল,নিরঞ্জন পন্ডিত, সত্যসাধন ঘোষ, মহঃ ইযাসিন। অসুস্থ অবস্থাতেই উপস্থিত ছিলেন হুগলি জেলা কৃষক সমিতির সভাপতি দেবু চ্যাটার্জি। বামপন্থী ট্রেড ইউনিয়ন ও গণসংগঠনের নেতৃত্ব ও কর্মী সহ প্রায় সহস্রাধিক মানুষ আজকের মহামিছিলে যোগ দেন। রাস্তার দুই ধারে অনেক মানুষ মিছিলকে স্বাগত জানান। বহুদিন পরে গোঘাটের মানুষ এত বড়ো মিছিল প্রত্যক্ষ করল।

২৬শে নভেম্বর সারা ভারত ব্যাপি ধর্মঘটের সমর্থনে সি. পি. আই. (এম) ধনিয়াখালি এরিয়া কমিটির ডাকে এক বিশাল মিছিল ধনিয়াখালি পার্টি অফিস হইতে ধনিয়াখালি বাজার, সিনেমা তলা, ধনিয়াখালি থানা, হসপিটাল, বিডিও অফিস ঘুরে ধনিয়াখালি মদনমোহন তলায় শেষ হয়। শ্রমিক, কৃষকের বিভিন্ন দাবি কৃষি বিল শ্রম আইন ও বিভিন্ন রাষ্ট্রায়ত্ত শিল্পকে বেসরকারিকরন সহ বিভিন্ন দাবি নিয়ে এই প্রতিবাদ মিছিল এলাকায় মানুষের মধ্যে ধর্মঘটের সমর্থনে বিশাল উৎসাহের সৃষ্টি করে। মিছিলে উপস্থিত ছিলেন আবদুল হাই, দীলিপ মুখার্জী, বন্য টুডু, শক্তি দাস, অচিন্ত দাস, অরুণ মুখার্জি, সুনিল বাগ, তাপস ঘোষ, নুরুল ইসলাম হালদার, দীপালি মুর্মু, পরেশ বাগ, রবিন মণ্ডল প্রমুখ।

অন্যদিকে দাদপুর এরিয়া কমিটির উদ্যোগে ধর্মঘটের সমর্থনে হারিট হাটে পথসভা হয়, এই পথসভায় সভাপতিত্ব করেন নাসির হালদার, বক্তব্য রাখেন সৌমেন্দ্রনাথ ঘোষ, মহ: মাহফুজ, রামকৃষ্ণ রায়চৌধুরী।

সায়ঙ্ক মন্ডল, শ্রীরামপুর: আজ সন্ধ‍্যায় শ্রীরামপুর মাহেশ ফাঁড়িতে ২৬ নভেম্বর সারা ভারত ধর্মঘটের সমর্থনে বাম মহিলা, শ্রমিক, যুব, ছাত্র ও কংগ্রেস শ্রমিক সংগঠনের যৌথ পথসভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় বক্তব্য রাখেন ভারতের কমিউনিস্ট পার্টি (মার্কসবাদী) শ্রীরামপুরে পূর্ব এরিয়া কমিটির সম্পাদক ও হুগলী জেলা কমিটির সম্পাদক সুমঙ্গল সিং সহ ভারতের ছাত্র ফেডারেশনের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য নবনীতা চক্রবর্তী মহাশয়া।

জয়দেব ঘোষ-পান্ডুয়া:-প্রতি বছর ন্যায় এ বছরও বৈঁচী জগদ্ধাত্রী পূজা উপলক্ষে বৈঁচী এরিয়া কমেটির উদ্যেগে “মার্কসীয় সাহিত্য সম্ভার” বুকষ্টল উদ্বোধন হল। উপস্থিত ছিলেন এরিয়া কমিটির সম্পাদক কমরেড প্রদীপ সাহা মহাশয়, কমরেড সুকুমার দাঁ সহ পার্টির কর্মিবৃন্দ।

২৬শে নভেম্বর দেশজুড়ে কেন্দ্রীয় সরকারের কৃষকমারা কৃষিবিলের বিরুদ্ধে এবং সমগ্র জনবিরোধী নীতি সমুহের বিরুদ্ধে ধর্মঘটের সমর্থনে গোঘাটে ব্যাঙ্গাই থেকে গোবিন্দপুর মহামিছিল আজ সংগঠিত হোলো।

চৈতালি নন্দী, চন্দননগর: জগদ্ধাত্রী পূজোর প্রাক্কালে চন্দননগর বান্ধব সমিতি ও চন্দননগর ইস্পাত সঙ্ঘের উদ‍্যোগে গভীর রাতে চন্দননগর স্টেশনে ঠান্ডায় কাতর প্রান্তিক মানুষদের গায়ে তুলে দেওয়া হয়েছে কম্বল। এদিন ২০ জন মানুষ পেয়েছেন কম্বল।

রঘুনাথ ঘোষ: আগামী ২৬ শে নভেম্বর দেশব্যাপী সাধারণ ধর্মঘট-এর সমর্থনে হুগলীর চন্ডীতলা-১ নং ব্লক এলাকায় বাম গণ সংগঠন সমূহের যৌথ মঞ্চের আহ্বানে শুক্রবার বিকালে শিয়াখালা থেকে জঙ্গলপাড়া বিশাল পদযাত্রা সংগঠিত হয়। পদযাত্রার সূচনা করেন গণ আন্দোলনের নেতা কম: দেবব্রত ঘোষ। পদযাত্রায় নেতৃত্ব দেন কম: দেবব্রত ঘোষ, ভক্তরাম পান, আব্দুল হাই, স্বপন বটব্যাল, রঘুনাথ ঘোষ, দিলীপ সানকী, অশোক নিয়োগী, আজিম আলি, সোমনাথ ঘোষ, আশীষ চ্যাটার্জী, পুষ্প পাত্র, লক্ষী মালিক, মুসা হালদার, সঞ্জয় ঘোষ, সেখ শাজাহান প্রমুখ। ১৫ নং রাজ্য সড়ক ধরে প্রায় সাড়ে ছয় কি.মি. সুসজ্জিত শ্লোগান মুখরিত এই পদযাত্রায় দু-পাশের মানুষের মধ্যে বিশেষ উৎসাহের সৃষ্টি হয়।


মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।