কলমের খোঁচা

স্বাধীনতা তুমি এসো স্বাধীন হয়ে, সবার হয়ে….


মিতা দত্ত: চিন্তন নিউজ:১৫ই আগস্ট:- একটা গল্প বলি।স্বাধীনতার প্রাক্কালে হিন্দু – মুসলমান সম্পর্ক যা দাঁড়িয়েছিল তার এক বস্তুনিষ্ঠ বর্ণনা দিচ্ছেন ময়মনসিংহের এক মুসলমান চাষী :

” আমাদের গাঁয়ে অনেকেই আসামে গিয়ে চাষবাস করতে থাকে। তারা শেষপর্যন্ত সেখানেইই থেকে যায়। ময়মনসিংহের জমির চেয়ে ও সেখানকার জমি উর্বরা, সস্তাও বটে।আমি সেখানে কয়েকবছর রয়েই গেলাম তারপর বাড়ি ফেরার তাগাদা দিয়ে চিঠি পেয়ে বাড়ি ফেরা ঠিক করলাম কিন্তু ফেরার পথে যত ঝামেলা।কী সেই দিনগুলো। লোকে ইংরেজ রাজ খতম করে স্বাধীনতা চাইছে – পাকিস্তান চাইছে। তাছাড়া চলছে দেশজুড়ে হিন্দু মুসলমানের মারামারি।আমি আসাম থেকে দেশে ফেরার জন্য ট্রেনের কামড়ায় এক মহিলার কাছে বসি।তিনি শুয়েছিলেন, আমাকে দেখে চিৎকার করে বললেন,তুমি মুসলমান,তুমি এখানে বসতে পারবে না। এই ট্রেনে মুসলমানদের বসাার জায়গা নেই। তোমার দেশ তো মক্কা ,মক্কা চলে যাও। অন্য হিন্দু যাত্রীরা হেসে উঠল।আমি দাঁড়িয়ে থাকলাম।

কিন্তু যেই আমি বাংলার সীমানা পার করলাম দৃশ্য বদলে গেলো। তখন দেখি হিন্দুরা দাঁড়িয়ে, ভয়ে কাঁটা। আর মুসলমানরা বসে মোচে তা দিচ্ছে।

এই ভয়ংকর চিত্রের মধ্যে স্বাধীনতালাভ।তাই ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেসের হাতে ব্রিটিশ শাসকদের ক্ষমতা হস্তান্তরের ঘটনাটিকে যেমন কোনোমতেই একটি সত্যিকারের বিপ্লব বলা যায় না। আবার তেমনি নিছক সমাঝোতার পরিণতি নয়। এটা ছিলো এমন একটা প্রক্রিয়া যেখানে বিপ্লব ও সমঝোতা দুটোই বর্তমান।

ভারতের বুর্জোয়া নেতৃত্ব সীমাবদ্ধ বিপ্লবের পক্ষপাতী যার আশু লক্ষ্য প্রকৃত বিপ্লবকে বানচাল করে ক্ষমতায় টিকে থাকা। সেইজন্য স্বাধীনতাপূর্ব কালে যখনই আন্দোলনে জোয়ার এসেছে, তখনই তাকে অস্তমিত করা হয়েছে। তাই খন্ডিত স্বাধীনতা আমাদের গ্রহন করতে হয়েছে।

অতএব নিচুতলার আসন্ন বিপ্লবকে বানচাল করার জন্য ওপরতোলা থেকে চাপিয়ে দেওয়া ” সীমাবদ্ধ বিপ্লবের ” ওপর ক্ষমতা হস্তান্তর যা স্বাধীনতা হিসেবে পরিচিত।

তাই পঞ্জিকা দেখে ক্ষমতা হস্তান্তরের দিন ধার্য করা হয়। ঊষালগ্নেই বিজ্ঞানে কুঠারাঘাত। শুধু বিজ্ঞান নয় আঘাত পায় শ্রমজীবি মানুষ ।তাদের ধর্মের আফিম খাওয়ালেও নেশা কাটতে সময় লাগে নি। তাই আজও তারা মুক্তির লড়াই করে।

তাই সুকান্তের কথাই বলতে হয়, রক্তে আনো লাল
রাত্রির গভীর থেকে ছিঁড়ে আনো ফুটন্ত সকাল।


মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।