দেশ

“সেন্ট্রাল ভিস্টা প্রকল্প ও বর্তমান অতিমারী পরিস্থিতি ”


মধুমিতা রায় : চিন্তন নিউজ:২১শে মে :– অতিমারী পরিস্থিতিতে সারা দেশ জুড়ে মানুষের জীবনযাত্রা স্তব্ধ । এমন এক কঠিন সময়ে কেন্দ্রের বিজেপি সরকার ব্যাস্ত সৌন্দর্যায়নে। এ যেন নীরোর বেহালা বাদন। সারা দেশে যখন মৃত্যু মিছিল বাড়ছে তখন কুড়ি হাজার কোটি টাকা ব্যায় করে শুরু হয়েছে কেন্দ্রীয় সরকারের ”সেন্ট্রাল ভিস্টা প্রকল্প” । স্বাস্থ্য পরিকাঠামো ভেঙে পড়েছে, অক্সিজেনের অভাবে খাবি খেতে খেতে প্রাণ হারাচ্ছেন মানুষ। ভ্যাকসিন দূর অস্ত। লকডাউনে কাজ, হারিয়ে বেকার হচ্ছেন শিক্ষিত ও মজদুর বর্গের অংশ । জিনিস পত্রের অস্বাভাবিক মূল্যবৃদ্ধির কারণে জেরবার সাধারণ মানুষ। এমতাবস্থায় জনগণের ভবিষ্যৎ সুরক্ষিত না করে কোটি কোটি টাকা ব্যয়ে রাজধানীর সৌন্দর্যায়ন করা হচ্ছে।

করোনা পরিস্থিতিতে দিল্লীতে লকডাউন চলছে। সাধারণ খেটে খাওয়া শ্রমিকদের এই প্রকল্পে কাজ করানো হচ্ছে নূন্যতম স্বাস্থ্যবিধি না মেনেই। এর ফলে ভয়ংকর ভাবে বাড়বে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা। ইতিহাসবিদ অধ্যাপক সোহেল হাশমির নেতৃত্বে কয়েকজনের টিম দিল্লি হাইকোর্টে এই প্রকল্প বন্ধের আর্জি জানিয়ে মামলা দায়ের করেন। রোমিলা থাপার, গায়ত্রী চক্রবর্তী, ওরহান পামুকের মতো শিক্ষাবিদ, সাহিত্যিক ছাড়াও এই প্রকল্পের বিরোধিতা করেছেন অবসরপ্রাপ্ত ফৌজি অফিসারেরা। সাধারণ জনমানসে প্রশ্ন উঠেছে এই ভয়াবহ পরিস্থিতির মধ্যেও জরুরী কোনটা .. সৌন্দার্য্যায়ন নাকি জনগণের ভবিষ্যৎ সুরক্ষা ?

মোদী সরকার রাজপথের , রাষ্ট্রপতি ভবন থেকে ইন্ডিয়া গেট পর্যন্ত তিন কিলোমিটার রাস্তা সাজাতে ভেঙে ফেলছেন ঐতিহাসিক ন্যাশনাল মিউজিয়াম, ইন্দিরা গান্ধী ন্যাশনাল সেন্টার ফর আর্টস ন্যাশনাল আর্কাইভের অ্যানেক্সি ভবন । যা আমাদের দেশের ঐতিহ্য বহন করে। ন্যাশনাল মিউজিয়ামে সংরক্ষিত আছে ভারতবর্ষের পাঁচ হাজার বছরের ইতিহাসের চিহ্ন। এছাড়াও ভেঙে ফেলার আওতায় শাস্ত্রী ভবন , জওহর ভবন, বিজ্ঞান ভবন, শ্রমশক্তি ভবন , রক্ষাভবনের মতো একাধিক প্রশাসনিক ভবন ও সরকারি বাসভবন। শুধু ভবন নয় গোটা বিশ্বে যখন অক্সিজেনের ঘাটতি তখন নিছক সৌন্দর্য্যায়নের জন্য কয়েক হাজার গাছ কেটে ফেলার সিদ্ধান্তে রীতিমত শঙ্কিত পরিবেশবিদগণ ।

দেশের আর্থিক অবস্থা টালমাটাল। জনগনের কাছে অর্থ সাহায্যের আবেদন করা হচ্ছে। জিডিপির হার তলানিতে, নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসপত্রের দাম বাড়ছে ক্রমাগত, অতিমারীর কারনে বেড়ে চলেছে মৃত্যু মিছিল । এই কঠিন সময়ে কুড়ি হাজার কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত মোদী সরকারের সেন্ট্রাল ভিস্টা প্রকল্প যেন“ মৃত্যুদুর্গ ” সেন্ট্রাল ফোর্টিস অফ ডেথ । এ যেন হিটলারের ‘‘আউশভিৎজ কনসেন্ট্রেশন ক‌্যাম্প ” .. জনগণের জীবনের বিনিময়ে তৈরী এই প্রকল্প ইতিহাসে কলঙ্কজনক অধ্যায় হিসেবে চিহ্নিত হবে ।


মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।