রাজ্য

শিল্পীদের পাশে, শিল্পীদের সাথে সংস্কার ভারতী পরিবার”


সুপর্ণা রায়: চিন্তন নিউজ:১৭ই জুন:– চলছে লকডাউন , বন্ধ পশ্চিমবঙ্গের গণপরিবহন ব্যবস্থা। এদিকে অফিস থেকে শপিং মল, ছোট দোকান বাজার আরো কিছু কিছু খুলেছে আংশিক। কিন্তু পশ্চিমবঙ্গের মমতা ব্যানার্জি সরকার এত সংস্কৃতিবান মানুষ হয়েও একবারও একটি কথা খরচ করলেন না লকডাউন এর জেরে কি ভয়ঙ্কর বিপদে পড়া কর্মহীন শিল্পীদের নিয়ে। যেমন তিনি কোনদিনই বলেন না এরাজ্যের শিক্ষিত বেকার যুবক- যুবতী দের কর্মসংস্থান এর বিষয়ে।

পশ্চিমবঙ্গের প্রখ্যাত হরবোলা শিল্পী দুলাল দাস। তাঁর কন্ঠের জাদুতে মুগ্ধ হতো শ্রোতা কুল। এটাই ছিল তাঁর রোজগারের একমাত্র পথ। কিন্তু করোনা কালে এসব এখন অতীত। প্রায় একবছর ধরে তাঁর কোন রোজগার নেই।। মঞ্চের সব অনুষ্ঠান বন্ধ। সংসার চালাতে হিমশিম খাচ্ছেন।। এই রকমই অবস্থা বিভিন্ন স্থানের নৃত্য শিল্পী,গায়ক গায়িকা বা ছবি আঁকা শেখান। এই সব শিল্পী দের পাশে দাঁড়িয়েছেন বীরভূম এর ” সংস্কার ভারতী””।। এরা বিভিন্ন উপায়ে দঃস্থ শিল্পীদের পাশে এসে দাঁড়িয়েছে। বিভিন্ন অসুবিধা উপেক্ষা করে এই সংস্থা দুঃসময়ে তাদের পাশে দাঁড়িয়েছেন।

বিগত ১৬ মাস ধরে লকডাউন জন্য মঞ্চের সব অনুষ্ঠান বন্ধ। অতিমারীর কারণে মানুষের জীবন ওষ্ঠাগত। অনলাইনে সাংস্কৃতিক চর্চা হলেও মঞ্চের অনুষ্ঠান সম্পূর্ণ বন্ধ। এই মুহূর্তে তাঁরা সাংঘাতিক অর্থকষ্টে পড়েছেন। এদিকে নিজেদের পরিচয় এর জন্য নিজেদের কষ্টের কথা কাউকে বলতে ও পারেন না।। বীরভূম জেলার সিউড়ি শহরের একটি সাংস্কৃতিক দল , সংস্কার ভারতী এই সব দু্ঃস্থ মানুষ এর পাশে দাঁড়িয়েছেন।। তাঁরাই আজ এইসব দুঃস্থ অসহায়দের শিল্পীদের পাশে নিজেদের পয়সা দিয়ে প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র গুছিয়ে নিয়ে এই দুঃস্থ অসহায়দের মানুষ এর জন্য প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র নিয়ে শিল্পীদের বাড়ী বাড়ী পৌছে গেছে।।এই উদ্যোগ এর নাম দেওয়া হয়েছে “শিল্পীদের পাশে, শিল্পীদের সাথে সংস্কার ভারতী পরিবার””-

গত ১৩ ই জুন থেকে এরা সাংসারিক প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র নিয়ে শিল্পীদের বাড়ী বাড়ী পৌছে যাচ্ছেন সংস্কার ভারতী র সদস্যরা। সিউড়ির সেয়হারাপাড়ার বাসিন্দা বিষ্ণু হাজরা বিখ্যাত পারক্যাশন শিল্পী জানিয়েছেন যে এই ভীষণ সংকটময় অবস্থায় সংস্কার ভারতীর ছেলে মেয়ে গুলো তাঁদের পাশে না দাঁড়ালে তাদের না খেয়ে মরতে হতো।। কাশীপুরে গ্রামের বাসিন্দা বাউল শিল্পী গোঁসাই দাস বাউল জানিয়েছেন “”এই প্রত্যন্ত গ্রামে এসে সংস্কার ভারতী র ছেলে মেয়ে গুলো আমাদের পাশে দাঁড়িয়ে আমাদের বাঁচিয়ে দিয়েছে।।”” যে কাজ সরকারের করার কথা ছিল সেই কাজ করতে তারা ব্যর্থ তাই আজ সাধারণ ছেলে মেয়ে গুলো এই মানুষ গুলোর পাশে এসে দাঁড়িয়েছে।


মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।