জেলা

সরকারি নির্দেশ না মেনেই অতিরিক্ত অর্থ নিয়ে ছাত্র ভর্তি প্রক্রিয়া চালু রাখে বানারহাট হিন্দি এ ভি এম স্কুল,


সঞ্জিত দে:ধূপগুড়ি: চিন্তন নিউজ: ১০ আগষ্ট ঃঃ- রাজ্য সরকারের স্কুল শিক্ষা দপ্তর ঘোষণা করেছে স্কুলে ভর্তি হতে গেলে ফি বাবদ কোনো মতেই ২৪০ টাকার বেশি ছাত্র ছাত্রীদের থেকে নেওয়া যাবেনা। জলপাইগুড়ি জেলার নবগঠিত ব্লক চা বলয়ের বানারহাটের হিন্দি আদর্শ বিদ্যামন্দির ( এ ভি এম) এই নির্দেশ একেবারেই অমান্য করে ডেভলপমেন্ট ফি বাবদ ৫০০ টাকা, কালচারাল ফি বাবদ ৩০ টাকা করে নিয়ে ছাত্র ভর্তি শুরু করে। এর বাইরেও ভূগোল, বিজ্ঞান বিষয়ের জন্য আরও অর্থ আদায় করে। এই ঘটনা নিয়ে ছাত্র এবং অভিভাবকদের মধ্যে তীব্র ক্ষোভ অসন্তোষ দেখা দেয়। এস এফ আইয়ের জলপাইগুড়ি জেলা কমিটি জেলা স্কুল পরিদর্শককে ডেপুটেশন দেবার পরে স্কুল পরিদর্শক হিন্দি স্কুলকে চিঠি দিয়ে এই অর্থ আদায়ে বিরত থাকতে বলে।

এর পরেও বানারহাট হিন্দি এ ভি এম স্কুল কতৃপক্ষ এবং তৃনমুল পরিচালিত স্কুল পরিচালন কর্মকর্তারা নির্দেশ না মেনেই অতিরিক্ত অর্থ নিয়ে ছাত্র ভর্তি প্রক্রিয়া চালু রাখে।এস এফ আইয়ের বানারহাট লোকাল কমিটি এবং অভিভাবকদের আপত্তি করায় ছাত্র ভর্তি বন্ধ করে স্কুল কতৃপক্ষ। এই ঘটনার জেরে সোমবার ছাত্র ছাত্রীরা বিক্ষোভ মিছিল করে পথ অবরোধ করে। মঙ্গলবার এস এফ আইয়ের নেতৃত্বে ছাত্রছাত্রীদের বিরাট মিছিল বানারহাটে বিভিন্ন রাস্তা ঘুরে গ্রামপঞ্চায়েতের অফিসে অস্থায়ী বিডিও অফিসে নতুন বিডিও প্রহ্লাদ বিশ্বাসকে ঘেরাও করে বিক্ষোভ দেখায়।এস এফ আইয়ের নেতৃত্ব নিরাল দুসাদ,রিতেশ রায়,সুষমা মুন্ডা। জেলা সম্পাদক শুভময় ঘোষ,অনুভব অর্ক দে প্রমুখ লিখিত দাবিপত্র তুলে দিয়ে বলে সরকারের ঘোষিত ফি এর অতিরিক্ত আদায় করা চলবে না। অবিলম্বে স্কুলে ভর্তি প্রক্রিয়া চালু করতে হবে এবং যাদের থেকে অতিরিক্ত অর্থ আদায় করা হয়ে দ্রুত সেই অর্থ ছাত্রছাত্রীদের ফেরত দিতে হবে। এই সাথে দাবি করা হয় ছাত্র ছাত্রীদের বাস ভাড়া অর্ধেক মকুব করতে হবে।

বিডিও প্রহ্লাদ বিশ্বাস ছাত্র নেতৃত্বকে আশ্বাস দিয়েছেন সব দাবি নিয়ে তিনি দু একদিনের মধ্যে জেলা শাষক এবং জেলা স্কুল পরিদর্শকের সাথে আলোচনা করবেন।ছাত্র নেতৃত্ব জানিয়েছেন আগামী সাত দিনের মধ্যে দাবি পূরন না হলে ফের বড় আন্দোলন করা হবে।


মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।