জেলা

পলাতক ভাইস চেয়ারম্যান সৈকত চ্যাটার্জী, রাতভর তল্লাশি পুলিশের।।


দীপশুভ্র সান্যাল:চিন্তন নিউজ:- , জলপাইগুড়ি, ১৭জুন:- রাতভর তল্লাশির পরেও জলপাইগুড়ি পুরসভার ভাইস চেয়ারম্যানের খোঁজ পেলো না পুলিস।
হাই কোর্টে আগাম জামিনের আবেদন খারিজ হতেই গা ঢাকা জেলা যুব তৃনমূল সভাপতির।
বাড়ি সহ বিভিন্ন আস্থানায় রাতভর লোক দেখানো পুলিসের তল্লাশির পরেও অধরা সৈকত,চাঞ্চল্য জলপাইগুড়িতে।

গত ১লাএপ্রিল ঘটা এক দম্পতির আত্মহত্যায় প্ররোচনা দেবার অভিযোগে অভিযুক্ত জেলা যুব তৃনমূল সভাপতির উচ্চ আদালতে আগাম জামিনের আবেদন খারিজ হতেই, তাকে গ্রেফতার করার জন্য অভিযুক্ত সৈকত চট্টোপাধ্যায়ের বাড়ি সহ বিভিন্ন আস্থানায় তল্লাসি অভিযান শুরু করেছে জলপাইগুড়ি কোতোয়ালি থানার বিশাল পুলিশ বাহিনী, এর পাশাপাশি অতিরিক্ত পুলিশ সুপারের নেতৃত্বে জাতীয় সড়কে শুরু হয়েছে নাকা তল্লাশি।
যদিও এই নাকা তল্লাশি পঞ্চায়েত নির্বাচনের জন্য বলে দাবি করেছেন জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার।

অপরদিকে জলপাইগুড়ি শহরে ইতিমধ্যেই ছড়িয়ে পড়েছে পৌরসভার ভাইস চেয়ারম্যান সৈকত চট্টোপাধ্যায় কে খুজে না পাওয়ার খবর। তবে কি সৈকত পলাতক প্রশ্ন ঘুরছে শহরের মানুষের মুখে।
শুক্রবার কলকাতা হাই কোর্টের জলপাইগুড়ি সার্কিট বেঞ্চ দম্পতি আত্মহত্যা মামলায় প্রধান অভিযুক্ত পুরসভার ভাইস চেয়ারম্যান সৈকত চট্টোপাধ্যায় এর করা আগাম জামিনের আবেদন খারিজ করে দিয়েছেন দুই বিচারপতির ডিভিশন বেঞ্চ।
এরপরেই লোক দেখানো পুলিসের তৎপরতা শুরু হয় বলে ওয়াকিবহাল মহলের ধারণা। যদিও শুক্রবার গভীর রাত পর্যন্ত কোতোয়ালি থানার পুলিসের করা অভিযানের পরেও জোড়া আত্নহত্যার ঘটনায় প্ররোচনা দেবার অভিযোগে অভিযুক্ত তৃণমূল নেতা সৈকত চট্টোপাধ্যায়ের কোনো হদিস পাওয়া যায় নি বলেই পুলিশ সূত্রের খবর।


মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।